,

গণধর্ষণের ভিডিও ভাইরাল, স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃপিরোজপুরের কাউখালী উপজেলায় এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ ও সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার হুমকি দেওয়ায় স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে কাউখালী থানায় ৫ জনকে আসামি মামলা করেন। মামলার আসামি শাকিল হোসেনকে (২৩) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কাউখালী উপজেলার ছোট বিড়ালজুড়ি গ্রামের নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে একই উপজেলার কাঠালিয়া গ্রামের সজিব খান (২৪), মো. সাকিল (২৩), আকাশ মীরসহ (২৪) চার-পাঁচজন প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতেন। তারা গত ১৬ জুলাই মোবাইল ফোনে স্কুলছাত্রীকে ডেকে স্থানীয় হাবিব মীরের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে যান। সেখানে স্কুলছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন এবং দৃশ্যগুলো মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে রাখেন অভিযুক্তরা। এরপর তারা স্কুলছাত্রীকে তাদের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক চালিয়ে যাওয়ার কুপ্রস্তাব দেন। তাদের প্রস্তাবে রাজি না হলে ধর্ষণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দেন তারা। এ হুমকিতে লোকলজ্জার ভয়ে স্কুলছাত্রী ১৬ জুলাই রাতে ঘরের বারান্দায় ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। প্রতিবেশীরা টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে ১৭ জুলাই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় স্কুলছাত্রী। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে ২২ জুলাই রাতে কাউখালী থানায় মামলা করেন।কাউখালী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বনী আমিন বলেন, স্কুলছাত্রীকে আত্মহত্যার প্ররোচনায় তার বাবা বাদী হয়ে ৫ জনকে নামীয় ও কয়েকজনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেছেন। মামলার ২ নং আসামি শাকিল হোসেনকে (২৩) গ্রেফতার করা হয়েছে।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category