,

মেয়ে ও নাতিছেলের হত্যার বিচার চেয়ে নানির মামলা


কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়া শহরের কাস্টম মোড়ে প্রকাশ্যে নিজ স্ত্রী ও শিশুসহ তিনজনকে গুলি করে হত্যার অভিযোগে পুলিশের এএসআই সৌমেন রায়ের নামোল্লেখসহ মামলা রুজু হয়েছে কুষ্টিয়া মডেল থানায়। রোববার (১৪ জুন) রাত সাড়ে ১১টায় নিহত আসমার মা হাসিনা বেগম বাদি হয়ে মামলাটি করেন। নিহত আসমার মা কুমারখালী উপজেলার নাথুরিয়া গ্রামের আমির আলীর স্ত্রী হাসিনা খাতুন বলেন, সকালে সৌমেন শহরের বাবুর আলী গেটের নিকটস্থ আমাদের ভাড়া বাসা থেকে আসমাকে সাথে করে খুলনায় নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হয়। দুপুরের পরে লোকমুখে শুনতে পায় আসমা কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে। এখানে এসে দেখি আমার মেয়ে মৃত: অবস্থায় পড়ে আছে। সৌমেন গত দুইদিন আগে খুলনা থেকে এসে আমাদের বাসায় উঠেন। গতকাল আসমাকে খুলনায় নিয়ে যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’জনের মধ্যে ঝগড়া ঝাটিও হয়েছিলো। তখন তো বুঝি নাই এমন ঘটনা ঘটতে পারে। আমি বিচার চাই। কুষ্টিয়া মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নিশিকান্ত দাস রবিবার রাত সাড়ে ১১টায় জানান, নিহত আসমা খাতুনের মা হাসিনা বেগম বাদি হয়ে মেয়ে ও নাতিছেলে হত্যার দায়ে পুলিশ সদস্য এ এস আই সৌমেন রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে এজাহার দিয়েছেন। এজাহারটি মামরা হিসেবে নথিভুক্তকরন প্রক্রিয়া চলছে।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category