,

সাভারে সিটি ইউনিভার্সিটি বন্ধ ঘোষণা

সাভার প্রতিনিধি: সাভারে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের গুলিতে সিটি ইউনিভার্সিটির টেক্সটাইল বিভাগের শিক্ষার্থী সিফাত (২৩) নিহত হওয়ার ঘটনায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সিটি ইউনিভার্সিটি আগামী ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার সকাল থেকে ক্যাম্পাসের মূল ফটকে বন্ধের নোটিশ টাঙ্গিয়ে দেন কর্তৃপক্ষ। এদিকে সকাল ১০টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নিদের্শ দেয়া হয়েছে। সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা আবাসিক হল ছাড়তে শুরু করেছে।

শিক্ষার্থীরা জানায় প্রেমসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সোমবার সিটি ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী বাপ্পির ভাড়াটে সন্ত্রাসী শাওন খাগান বাজারে শিক্ষার্থীদের উপর এলোপাথারি গুলি চালায়। এসময় ঘটনাস্থলেই টেক্সটাইল বিভাগের শিক্ষার্থী সিফাত নিহত হয়। এসময় বাসুদেব নামের এক শিক্ষার্থী গুলিবিদ্ধসহ আহত হয় অন্তত ৭ জন। পরে আহতদের উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা সোমবার আনোয়ার জং আশুলিয়া সড়ক অবরোধ করে মোটরসাইকেলে আগুনসহ দোকানপাট ভাঙচুর করলে পুলিশের সাথে শিক্ষার্থীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এসময় পুলিশের পিটুনিতে আহত হয় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী। এঘটনায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সিটি ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ আজ থেকে আগামী ১৭ তারিখ পর্যন্ত ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণা করেছে। শিক্ষার্থীরা সকাল থেকে হল ছাড়তে শুরু করেছে।

এদিকে এঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষার্থী বাপ্পিকে প্রধান আসামি করে বেশ কয়েক জনের নাম উল্লেখ করে সাভার মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন নিহত শিক্ষার্থী সিফাতের পরিবার। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত জড়িত সন্দেহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে এঘটনায় এখন পর্যন্ত বিরুলিয়ার খাগান এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। সিটি ইউনিভার্সিটির সামনে দোকান পাট বন্ধ রেখেছেন ব্যবসায়ীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সিটি ইউনিভার্সিটির সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে, শাওন এলাকায় ভাড়াটে সন্ত্রাসী হিসেবে রাজত্ব কায়েম শুরু করেছিলেন। এর অংশ হিসেবে সোমবার ভাড়ায় শাওন সন্ত্রাসীদের নিয়ে শিক্ষার্থীদের উপর গুলি চালায়।

নিহত কলেজ ছাত্রের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করে লাশ নিহতের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছে সাভার মডেল থানার বিরুলিয়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এস আই তারিকুল ইসলাম। তিনি জানান মামলার আসামীদের ধরতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। নিহত ওই কলেজ ছাত্রের বাড়ি ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায়।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category