,

আবুল খায়ের কোম্পানীর অসাবধানতায় ফারুক মন্ডলের চোখ নষ্টের উপক্রম

মিরপুর প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার বারুইপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব চুনিয়াপাড়ায় অবস্থিত দেশের খ্যাতিমান আবুল খায়ের টোব্যাকো কোম্পানী লিঃ ক্রয়কেন্দ্রে কর্মরত কর্মচারীদের অসাবধানতায় এক তামাক চাষীর চোখ মারাত্বক ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে নষ্টের উপক্রম হয়েছে। বর্তমানে আহত ওই তামাক চাষী ঢাকার একটি বেসরকারী চক্ষু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনার ২দিন অতিক্রম হলেও আবুল খায়ের টোব্যাকো কোম্পানী লিঃ পক্ষ থেকে ওই তামাক চাষীর চিকিৎসায় এগিয়ে আসেনি। এতে তামাক চাষীদের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। আহত ওই তামাক চাষীর নাম ফারুক মন্ডল (৩২)। সে উপজেলার ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের ফুলবাড়ীয়া গ্রামের মৃত খোশবার মন্ডলের ছেলে। জানা যায়, ২ এপ্রিল একান্নবর্তী দরিদ্র পরিবারের সন্তান তামাক চাষী ফারুক উল্লেখিত তামাক ক্রয়কেন্দ্রে তামাক বিক্রি করতে যায়। এ সময় কর্মরত কর্মচারীরা তামাকের বেল সেলাই করার সময় অসাবধানতাবসতঃ পাটি সূচ (লোহাদন্ড দিয়ে তৈরী) ফারুকের বাম চোখের মণিতে গিয়ে আঘাত হানে। এতে সে গুরুত্বর আহত হয়। প্রথমে তাকে ত্রিমোনীতে অবস্থিত আগা ইউসুফ চক্ষু হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থার অবণতি হলে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। চিকিৎসকরা তাকে দেখে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করেন। বর্তমানে ফারুক ঢাকার মোহাম্মদপুরে অবস্থিত ভিশন আই হসপিটালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ফারুকের পরিবার সুত্রে জানা যায়,ইতিমধ্যেই ওই হাসপাতালে তার ব্যায়বহুল অর্ধলক্ষ টাকায় একটি অপারেশন করা হয়েছে। আরো চিকিৎসা ও অন্যান্য খরচ বাবদ লক্ষাধিক টাকা ছাড়িয়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। যা ফারুকদের দরিদ্র পরিবারের পক্ষে ব্যায়ভার বহন করা সম্ভব নয়। এ বিষয়ে মুঠোফোনে আবুল খায়ের টোব্যাকো কোম্পানী লিঃ কুষ্টিয়া এরিয়া ইনচার্য গোলাম কবিরের সাথে আজ মঙ্গলবার দুপুরে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনাটিন সম্পর্কে অবহিত নন বলে জানান। একই সাথে তিনি ঘটনাটি দুঃখজনক অবিহিত করে ঘটনাটি জেনে ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানান।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category