,

সিরিজ নিশ্চিতে ফিল্ডিংয়ে নেমেছে টাইগাররা

খেলা ডেক্স: প্রথমবারের মতো স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের ঐতিহাসিক এক মহাকাব্য রচনা করার লক্ষ্যে মাঠের লড়াইয়ে নেমেছে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থাকা সফরকারী বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগারদের দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা।

কলম্বোর সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ১০টায় মাঠে নামে দুই দল। টাইগারদের লক্ষ্য সিরিজ নিশ্চিত করা। লাল-সবুজদের একাদশে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসের শততম টেস্টে জয়ের পর (১-১ সমতায় টেস্ট সিরিজ শেষ হয়) রাঙ্গিরি ডাম্বুলা স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিকদের বিপক্ষে টাইগারদের ৯০ রানের দাপুটে জয়ের পর আশা করা হচ্ছিল দ্বিতীয় ম্যাচেও সেই দাপট অব্যাহত রেখে ডাম্বুলা দিয়েই লঙ্কাবধের মহাকাব্য লিখবে বাংলাদেশ। কিন্তু, সেটি হয়নি ক্রিকেটে সব সময়ের অনাহুত অতিথি ‘বৃষ্টি’ বাধায়। বৃষ্টির কারণে দ্বিতীয় ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় তৃতীয় ও শেষ ওডিআই এখন সিরিজ নির্ধারণী হয়ে দাঁড়িয়েছে। জিতলে টাইগাররা ২-০ তে সিরিজ নিজেদের করে নেবে। আর হারলে লঙ্কানরা ভাগ বসাবে সিরিজে (১-১)।

স্বাগতিকদের চেয়ে সফরকারীরা এগিয়ে থাকছে শক্তিমত্তা ও অভিজ্ঞতায়, পাশাপাশি সাথে থাকছে টইটুম্বুর আত্মবিশ্বাসও। দেশের মাটিতে চেনা কন্ডিশনে ধারাবাহিকভাবে প্রতিপক্ষদের হারিয়ে আসছে বাংলাদেশ দল। সবশেষ সাতটি হোম সিরিজের ছয়টিতেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে টাইগাররা। সময় এবার দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশের মাটিতেও সাফল্য আদায় করা।

তবে এই সিরিজ দিয়ে টাইগারদের আর র্যাংকিংয়ের ৬-এ উঠা হচ্ছে না। কেননা দ্বিতীয়টি বৃষ্টিতে পণ্ড হওয়ায় বাংলাদেশ ২-০ তে সিরিজ জিতলে রেটিং পয়েন্ট হবে ৯৫। আর ১-১ এ সমতা হলে রেটিং পয়েন্ট হবে ৯২। ফলে ৭ নম্বরেই থাকতে হবে। তবে র্যাংকিংয়ে নিজেদের অবস্থান হারানোর ভীতি লঙ্কানরা কাটিয়ে উঠেছে। দ্বিতীয় ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ায় বেশ নিশ্চিন্তেই ছয়ে থেকে সিরিজ শেষ করতে পারবে। সেটা ২-০ তে সিরিজ হেরে গেলেও। কোনো সন্দেহ নেই, সফরকারীদের কাছে টানা দুই হারে (শেষ টেস্ট ও প্রথম ওয়ানডে) জয়ের জন্য মুখিয়ে থাকা লঙ্কানরা নিজেদের সামর্থ্যের সর্বোচ্চটি দিয়েই এই ম্যাচে খেলবে। ঘরের মাটিতে মান বাঁচানোর প্রশ্নে নিশ্চয়ই আপোস করবে না শ্রীলঙ্কা। আর এই বিষয়টিই শেষ ম্যাচে লঙ্কানদের সবচেয়ে বড় চাপের কারণ হয়ে দাঁড়াবে।

তবে, এটাতেও কোনো সন্দেহ নেই লঙ্কানদের এই চাপকে পুঁজি করে মাশরাফিরা গর্জে ওঠার সর্বোচ্চ চেষ্টাটাই করবেন।

বাংলাদেশ একাদশ:
মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন, মুশফিকুর রহিম, মোস্তাফিজুর রহমান, সাব্বির রহমান, সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকার, তামিম ইকবাল, তাসকিন আহমেদ ও মেহেদি হাসান মিরাজ।

শ্রীলঙ্কা একাদশ:
উপুল থারাঙ্গা (অধিনায়ক), দিনেশ চান্দিমাল, আসেলা গুনারত্নে, দানুসকা গুনাথিলাকা, নুয়ান কুলাসেকারার, সুরাঙ্গা লাকমল, কুশল মেন্ডিস, দিলরুয়ান পেরেরা, থিসারা পেরেরা, সেকুজে প্রসন্ন, মিলিন্দা সিরিবর্ধানে।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category