,

শিশুকে গলা কেটে হত্যা, মা আটক

গাজীপুর প্রতিনিধি:  জেলার কাপাসিয়ায় এক মা তার তিন মাসের ছেলে শিশুকে গলা কেটে হত্যার পর নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে কাপাসিয়ার তরগাঁও ইউনিয়নের দিগধা গ্রামে।

পুলিশ মঙ্গলবার সকালে নিহত শিশু মেহের সান সাবিতের লাশ উদ্ধার এবং মা শাহিনুর বেগমকে (২৬) আটক করেছে। নিহত সাবিত দিগধা গ্রামের মো. শরিফুল হকের ছেলে।

এলাকাবাসী জানায়, শরিফুল মঙ্গলবার ভোরে স্ত্রী শাহিনুর ও দুই সন্তানকে ঘুমন্ত অবস্থায় রেখে ফজরের নামাজ পড়তে স্থানীয় মসজিদে যান। এরপর এক পর্যায়ে শাহিনুর ছুরি দিয়ে ঘুমন্ত সাবিতকে গলা কেটে হত্যা করে। শিশুটির কান্নার শব্দ শুনে পাশে শুয়ে থাকা শিশুটির বড় বোন মালিহা (৩) জেগে ওঠে। এ সময় সেও কান্নাকাটি শুরু করলে মালিহাকে হত্যার জন্য তেড়ে যায় মা। পরে মালিহা দৌড়ে ঘর থেকে বের হয়ে তার দাদিকে গিয়ে ঘটনাটি জানায়।

পরে তার দাদি ও পরিবারের লোকজন ঘরে গিয়ে সাবিতের রক্তাক্ত লাশ দেখতে পায়। এ সময় শাহিনুর গলায় ছুরি লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরে স্বজনরা তাকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়।

কাপাসিয়া থানার এসআই মোখলেছুর রহমান জানান,  সকাল পৌনে ৯টার দিকে সাবিতের গলাকাটা লাশ এবং একটি ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে। কি কারণে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

কাপাসিয়া থানার ডিউটি অফিসার এসআই মোজাম্মেল মিয়া জানান, এ ঘটনায় নিহত শিশুর মা শাহিনুর বেগমকে আটক করা হয়েছে। তাকে পুলিশ হেফাজতে কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category