,

চুয়াডাঙ্গায় দুর্ঘটনায় নিহত-১৩

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলায় বালুভর্তি ট্রাক ও যাত্রীবাহী ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৩ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও নয়জন। রবিবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে উপজেলার জয়রামপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়নের আব্দার হোসেন (৪৮), বিল্লাল হোসেন (৪০), আবু বকর সিদ্দিক (৪৩), ইজ্জত আলী (৬০), নজির আহমেদ (৩০), শান্ত আহমেদ (২২), হাফিজুর রহমান (৪০), শফিকুল ইসলাম (৩৫), বিল্লাল মোল্লা (৩৫), রফিকুল ইসলাম (৩৫), জজ হোসেন (২৮), লাল মোহাম্মদ (৩৫) ও শাহীন হোসেন (৩৫)।আহতরা হলেন- একই গ্রামের কালু মিয়া (৩০), আলতাফ হোসেন (৫০), জিয়াউর রহমান (৪০), সোহরাব হোসেন (৪৫), মজিবর রহমান (২২), শরীফ হোসেন (৪২), আতিকুল ইসলাম (২৫), শফিকুল ইসলাম (২৮) ও নুর ইসলাম (৪৫)। তারা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকালে উপজেলার বড় বলদিয়া গ্রাম থেকে ১৫-১৬ জন শ্রমিক আলমসাধুতে করে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে জয়রামপুর বটতলা এলাকায় আসার পর বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ট্রাকের সঙ্গে আলমসাধুর আংটা বেঁধে যাওয়ায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী জয়রামপুর গ্রামের আশরাফুল ইসলাম বলেন, একদল শ্রমিক নিয়ে একটি ভটভটি দর্শনার দিক থেকে চুয়াডাঙ্গা অভিমুখে যাচ্ছিলেন। বিপরীত দিক থেকে আসছিল বালুভর্তি একটি ট্রাক। জয়রামপুর স্কুলের কাছে ভটভটিকে সজোরে ধাক্কা মারে ট্রাকটি। ভটভটিটি চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে যায়। ট্রাকের চালক ও তার সহকারী পালিয়ে যান। শ্রমিকদের আর্তনাদে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে।

চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ আবদুস সালাম জানান, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে তারা উদ্ধারকাজ শুরু করেন। দশ জনের লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

দামুড়হুদা-জীবন নগর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার কলিমউল্লাহ বলেন, দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে আটজন নিহত হন। হাসপাতালে নেয়ার পর চারজন ও পথে একজনসহ ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category