,

‘নিহত ব্যক্তি আত্মঘাতী ছিল’

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সামনে গোলচত্বরে শরীরে থাকা বোমার বিস্ফোরণে নিহত ব্যক্তিকে আপাতদৃষ্টিতে আত্মঘাতী বলেই মনে করছেন ময়নাতদন্তকারী টিমের প্রধান ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিনের বিভাগীয় প্রধান সোহেল মাহমুদ। নিহতের পিঠের পেছন থেকে কোমরের নিচের অংশ পর্যন্ত বিস্ফোরণে ছিন্ন-বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বলেও জানান তিনি।

শনিবার দুপুরে লাশের সোহেল মাহমুদের নেতৃত্বে ফরেনসিক বিভাগের প্রভাষক ডা. প্রদীপ বিশ্বাস ও ডা. সোহেল কবীর ময়নাতদন্ত শুরু করেন। প্রায় ৪০ মিনিট ধরে চলা ময়নাতদন্ত শেষে গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান সোহেল মাহমুদ।

সোহেল মাহমুদ জানান, নিহতের পিঠের মাঝামাঝি থেকে দেহের পরের অংশ ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। তার শরীরে ৫৪ ইঞ্চি তারের টুকরা পাওয়া গেছে। স্কচটেপ দিয়ে বোমা শরীরে জড়ানো ছিলো। এছাড়া বাঁ-হাতের কব্জিতে রেগুলেটরের মতো একটা জিনিসও লাগানো ছিল। তার শরীরে স্প্লিন্টার পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সামনের গোলচত্বরে পুলিশ চেকপোস্টের কাছে বিস্ফোরণে ওই ব্যক্তি নিহত হয়। বিমানবন্দর থানার ওসি নূরে আযম মিয়া জানান, পুলিশ বক্সের পাশে পেট্রোল ইন্সপেক্টরের কার্যালয়ের কাছে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি হামলাকারী বলে পুলিশের ধারণা।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category