,

কুড়িয়ে পাওয়া লাখ টাকা ফেরত দিলেন দরিদ্র কলেজ ছাত্রী

কলকাতা প্রতিনিধিঃ দারিদ্র্য যে সততার পথে কোনো বাধা হতে পারেনা এবার তার প্রমাণ দিলেন এক কলেজে ছাত্রী। কুড়িয়ে পাওয়া এক লাখ টাকা ঠিকঠাক মতই মালিককে ফেরত দিয়েছেন তিনি।

দরিদ্র ওই কলেজ ছাত্রীর নাম সুহেলি বসাক। সে পশ্চিম বঙ্গের নদীয়া জেলার শান্তিপুর থানার ফুলিয়া মাঠপাড়ার বাসিন্দা। স্থানীয় শান্তিপুর কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। ফুলিয়ার মাঠপাড়ায় তাঁর একটি জেরক্স ও মোবাইল রিচার্জের দোকান রয়েছে। বাবা কানু বসাক পেশায় টোটো চালক। টানাটানির সংসারে নিজের পড়ার খরচ চালানোর জন্য কন্যাশ্রী প্রকল্পের পাওয়া ২৫ হাজার টাকায় ওই জেরক্স ও মোবাইল রিচার্জের দোকান চালান সুহেলি।

শনিবার বিকেলে দোকানে বসে থাকার সময় সুহেলি খেয়াল করেন, রাস্তায় একটি ব্যাগ পড়ে রয়েছে। ব্যাগটি খুলে দেখেন তাতে কিছু কাগজপত্র ও ৫০০ ও ২০০০ টাকার নোটে এক লাখ টাকা রয়েছে। পরে রবিবার সকালে উজ্জ্বল হালদার নামে এক ব্যক্তি, সুহেলির দোকানে এসে ব্যাগটির খোঁজ করেন। ফুলিয়া কালিতলা এলাকার কাপড় ব্যবসায়ী উজ্জ্বলবাবুর দাবি, সুহেলি চাইলেই ওই এক লাখ টাকা ফেরত না-ও দিতে পারত। কিন্তু উপযুক্ত প্রমাণ দিতেই সুহেলি ব্যাগ ফিরিয়ে দেন। সুহেলির এই ভূমিকায় খুবই খুশি হন উজ্জ্বল। আর টাকা ফেরত দিয়ে খুশি সহেলিও।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category