,

কুঠিবাড়ী উন্নয়নে ভারত-বাংলাদেশ চুক্তি

ষ্টাফ রিপোর্টার: কুষ্টিয়ার শিলাইদহের রবীন্দ্র কুঠিবাড়ীর উন্নয়নে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টায় কুঠিবাড়ীর বকুলতলার পুকুর পাড়ে এ চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পক্ষে অর্থনীতিক সম্পর্ক উন্নয়ন বিভাগের (ইআরডি) সচিব কাজী শফিকুল আজম ও ভারতের পক্ষে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধণ শ্রীংলা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, মন্ত্রনালয়ের সচিব ইব্রাহিম হোসেন খাঁন, ভারতীয় উপ-হাইকমিশনার ড. আদর্শ মোসাইকা, প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের মহাপরিচালক আলতাফ হোসেন, কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম মেহেদী উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ভারত সরকারের অর্থায়নে কুঠিবাড়ীতে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতি কমপ্লেক্সসহ বেশ কিছু স্থাপনা নির্মাণ করা হবে। যার ফলে কুঠিবাড়ীতে পর্যটকদের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পাবে।

ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধণ শ্রীংলা বলেন, এ কাজের জন্য ভারত সরকার ১৮.১৭ কোটি টাকা অনুদান দিচ্ছে। তিনি বলেন, এই চুক্তির মাধ্যমে ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে। এর ফলে দুই দেশের সাংস্কৃতির উন্নয়ন হবে।

তিনি বলেন, এটা ভারত-বাংলাদেশের সু-সম্পর্কের প্রতীক। এ স্থাপনা নির্মাণ হলে ভারতের অনেক পর্যটক এখানে ঘুরতে আসবে।

ভিসা নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হাইকমিশনার বলেন, গত বছর বাংলাদেশ থেকে রেকর্ড সংখ্যক পর্যটক ভারত ভ্রমণ করেছে তাই ভিসা জটিলতা এড়াতে নানা পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category