,

দৌলতপুরের সড়ক গুলো অবৈধ পরিবহনের দখলে

দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার প্রধান সড়কগুলো শ্যালো ইঞ্জিনের তৈরী তিন চাকা ও চার চাকার তৈরী অবৈধ ট্রলি বা মিনি ট্রাকের দখল করে রেখেছে।

ফলে প্রতিদিন দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে সাধারণ মানুষ। সড়কগুলো অবৈধ এ যানবাহন দখল করে রাখায় স্কুল কলেজ পড়ুয়া ছাত্র/ছাত্রী অভিবাবক সহ সাধারণ মানুষ চরম উৎকন্ঠার মধ্যে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে। তবে  এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনের কিছইু করার নেই বলে তারা জানিয়েছেন।
জানা যায়, উপজেলার ২৪ টি ইটভাটা মালিক তাদের ইট, মাটি ও কাঠ পরিবহনের জন্য প্রায় দুই শতাধিক চার চাকা বিশিষ্ট শ্যালো ইঞ্জিনের এ অদ্ভুত পরিবহন ব্যবহার করছে। ভারী লোহার তৈরী চার চাকার ট্রলির অধিকাংশ চালকদের বয়স ১৪/২০ বছর। যাদের আদৌও রাস্তায় গাড়ী চালানোর যোগ্যতা বা অভিজ্ঞতা নাই। ফলে, অতিরিক্ত মাটি ও ইট নিয়ে বে-পরোয়া গতিতে এসব ট্রলি চালানোর কারণে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা।

গত ১ মাসে উপজেলায় ৫ জন পথচারী এসব অবৈধ ট্রলির ধাক্কায় নিহত হয়েছে। আহত হয়ে হয়েছে প্রায় শতাধিক মানুষ। এছাড়া রাস্তায় ইট ও ইটের ভাঙ্গা অংশ ও মাটি পড়ে তৈরী হচ্ছে দুর্ঘটনার ক্ষেত্র। প্রতিদিন প্রধান সড়কে কয়েকশত অবৈধ এ ট্রলি চলাচল করায় সাধারণ পথচারী ও স্কুল কলেজগামী ছাত্র/ছাত্রীদের চরম বিপাকে পড়তে হচ্ছে। উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন তাদের অভিবাবকরা।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দৌলতপুর থানার ওসি আহমেদ কবীর বলেন, শ্যালো ইঞ্জিনের তৈরী চার চাকার এসব অবৈধ ট্রলি বন্ধ বা নিয়ন্ত্রণ করার বিষয়ে তাদের কিছু করার নেই।

তিনি আরো বলেন, এসব নির্দেশনা উপর থেকে আসতে হবে।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category