,

৮ কারণে চুলে মধু

ডেক্স নিউজ: চুলের যত্নে ভুলের মূল্য অনেক। চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া, চুলে ভেঙে যাওয়া, খুশকি সমস্যা, চুলের ঘনত্ব কমে যাওয়া, মাথার স্ক্যাল্পে সমস্যা সহ নানাভাবে ভুলের মূল্য দিতে হবে।

এছাড়াও সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে, চুল পড়ে টাক হয়ে যাওয়া লাগতে পারে। তাই চুলের যত্ন নিতে ভুল করা যাবে না। শরীরের ত্বকের মতো চুলেও প্রয়োজন বিশেষ যত্ন। আর এক্ষেত্রে চুলের যত্নে ব্যবহার করতে পারেন মধু। জেনে নিন, চুলে মধু ব্যবহারের ৮ কারণ।

চুলে আদ্রতা বজায় থাকবে
মধুতে রয়েছে প্রাকৃতিক হুমেকটেন্ট, অর্থাৎ এটি বাতাস থেকে আদ্রতা নিয়ে আপনার চুলে এবং ত্বকে তা ধরে রাখে। মধুর হুমেকটেন্ট উপাদান চুল ভেঙে যাওয়া রোধে সাহায্য করে, রুক্ষতা দূরে করে চুল সুস্থ ও মজবুত করে।

চুলের গ্রন্থিকোষ শক্তিশালী করবে
চুলের গ্রন্থিকোষ শক্তিশালী করতেও মধু কাজ করে। ফলে মাথার চুল ওঠে যাওয়া রোধ হওয়ার পাশাপাশি দীর্ঘ চুলের অধিকারী হওয়া যায়।

চুল উজ্জ্বল করবে
মধুতে গ্লুকোজ অক্সিডেস এনজাইম রয়েছে। একটু বেশি সময় ধরে চুলে মধু দিয়ে রাখলে এই এনজাইম ধীরে ধীরে হাইড্রোজেন পারক্সাইড নিঃসরণ করে, যা চুলে প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে। উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির মাস্ক হিসেবে- ৩ টেবিল চামচ মধুর সঙ্গে ২ টেবিল চামচ পানি মিশিয়ে ভেজা চুলে লাগিয়ে ১ ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন।

অ্যান্টি অক্সিডেন্টে ভরপুর
মধুতে শক্তিশালী অ্যান্টি অক্সিডেন্টের খোঁজ পাওয়া গেছে। এই অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমূহ চুলের ক্ষতি রোধ করে এবং মাথার স্ক্যাপ সুস্থ রাখে।

চুলের চাকচিক্য ভাব ফিরিয়ে আনবে
চুলে শ্যাম্পু করার পর দুই কাপ কুসুম গরম পানিতে দুই টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে চুলে ম্যাসাজ করুন। এটি রোদে পোড়া চুলের অনুজ্জ্বলতা দূর করে চাকচিক্যভাব ফিরিয়ে দেবে।

ব্যাকটেরিয়ারোধী এবং জীবাণুমুক্ত গুণাবলী রয়েছে
আপনি জেনে খুশি হবেন যে, মধু অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল (ব্যাকটেরিয়ারোধী) গুণসম্পন্ন। এটি মাথার স্ক্যাল্পে ইনফেকশন প্রতিরোধে কাজ করে এবং চর্মরোগ, খুশকি ও সোরিয়াসিস সমস্যার মোকাবেলা করে।

চুলের গ্রন্থিকোষ পরিষ্কার করবে
মধু চুলের গ্রন্থিকোষ শক্তিশালী করার পাশাপাশি গ্রন্থিকোষ থেকে সকল প্রকার অবিশুদ্ধতা পরিষ্কার করে দেয়। এটা কেন খুবই বড় একটি উপকারিতা? কারণ হচ্ছে, গ্রন্থিকোষের অবিশুদ্ধতায় চুল পড়তে শুরু করে।

চুল পুনরায় গজানোর উদ্দীপক হিসেবে কাজ করবে
চুলের বৃদ্ধি জোরদার করতে কাজ করে মধু এবং সুপ্ত গ্রন্থিকোষ বৃদ্ধির জন্যও কার্যকরী। তাই আপনার চুলের ঘনত্ব পাতলা হয়ে থাকে, ঘন চুল পেতে মধু ব্যবহার করুন।

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category