,

স্ত্রী হত্যায় স্বামীর ফাঁসি

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রামে যৌতুকের জন্য মিনা রানী (১৮) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার দায়ে স্বামী কাজল কুমার সরকারকে (২২) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল আদালত। একই সাথে এক লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ মো. রেজাউল করিম এই আদেশ দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত কাজল কুমার সরকার উপজেলার বনপাড়া পৌরসভার কালিকাপুর এলাকার শ্রী সুকেশ চন্দ্র সরকারের ছেলে।

নাটোর জজ কোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম জানান, ২০১৫ সালের প্রথম দিকে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার সাহেবগঞ্জ পালপাড়া গ্রামের সদানন্দ পালের মেয়ে মিনা রানীর সাথে কাজল কুমার সরকারের পরিচয় হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। পরে দুই পরিবারের মতামতের ভিত্তিতে একই বছরের জুলাই মাসের শেষের দিকে তাদের বিয়ে হয়।

বিয়ের তিন মাসের মাথায় কাজল কুমার সরকার মোটা অংকের যৌতুকের টাকা দেওয়ার জন্য স্ত্রী মিনা রানীকে চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। এতে রাজি না হওয়ায় মাঝে মধ্যেই মিনার ওপর শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন করতেন।

পরে ২০১৫ সালের ১২ অক্টোবর বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে কাজল কুমার ফের যৌতুকের টাকার জন্য মিনাকে শারীরিক নির্যাতন করলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

এই ঘটনায় ওই দিন রাতেই নিহতের বাবা সদানন্দ চন্দ্র পাল বাদী হয়ে কাজল কুমার সরকারকে আসামি ককে বড়াইগ্রাম থানায় হত্যাসহ নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন।

মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক কাজল কুমার সরকারকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন। একই সাথে আরো এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। যা আদায়া করে ক্ষতিপূরণ বাবদ ভিকটিমের বাবা-মাকে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category