,

সম্পর্কোন্নয়নে লাভ দু’দেশেরই : চীনকে ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্কচীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে ধন্যবাদ জানিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। তাইওয়ানকে নিয়ে দেয়া বক্তব্যে বেইজিংয়ের ক্ষুব্ধ হওয়া এবং ট্রাম্পের দায়িত্ব গ্রহণকে অভিনন্দন জানিয়ে শি জিনপিং বার্তা পাঠানোর প্রেক্ষিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ চিঠি পাঠালেন।

এক বিবৃতিতে মুখপাত্র সিয়ান স্পিসার বলেন, ট্রাম্প তার চিঠিতে চীনের সাথে গঠনমূলক সম্পর্কোন্নয়নে দেশটির প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কাজ করার আগ্রহের কথা জানান। কারণ সম্পর্কোন্নয়নে উভয় দেশই লাভবান হবে বলে ট্রাম্প তার চিঠিতে উল্লেখ করেন।

উল্লেখ্য, নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পরপরই তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট তিসাই ইং-ওয়েন অভিনন্দন জানিয়ে ট্রাম্পকে ফোন করেন। এ সময়ে ট্রাম্প এক চীন নীতির সমালোচনা এবং তাইওয়ানের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নীতি পরিবর্তনের আভাস দেন। এতে চীন ক্ষুব্ধ হয়।

যুক্তরাষ্ট্র ১৯৭৯ সালে তাইওয়ানের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক আনুষ্ঠানিকভাবে ছিন্ন করে এক চীন নীতিকে সমর্থন দেয়।

তবে একইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র ১৯৭৯ সালের তাইওয়ান রিলেশন্স অ্যাক্টের আওতায় এ দ্বীপ রাষ্ট্রের প্রতি রহস্যজনক দৃষ্টিভঙ্গি বজায় রেখে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ধরে রেখেছে এবং তাদের কাছে অস্ত্র বিক্রি করছে।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category