,

পার পেলেন ভেড়ামারা মেয়র ছানা

ভেড়ামারা প্রতিনিধিঃ  ক্ষমা চেয়ে হলফনামা দিয়ে পার পেলেন ভাতিজির বিয়ের অনুষ্ঠানে শর্টগানের গুলি ছুড়ে উল্লাস করা ভেড়ামারা পৌর মেয়র শামীমুল ইসলাম ছানা। ভূল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করায় তাকে সুযোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট।
মঙ্গলবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট হাবিবুর রহমান।
এর আগে তিনশত টাকার নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে ক্ষমা প্রার্থনা করে একটি হলফনামা জমা দেন আলোচিত মেয়র শামীমুল ইসলাম ছানা।
কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট হাবিবুর রহমান জানান, সরকারি বিধি অমান্য করে ভাতিজির বিয়েতে নিজের শর্টগান থেকে গুলি ছুড়ে আনন্দ উদযাপন ও পিস্তল প্রদর্শনের ঘটনায় ভেড়ামারা পৌর মেয়রকে এক সপ্তাহের সময় দিয়ে শোকজ করা হয়েছিল। বেধে দেয়া সময়ের মধ্যেই জেলা প্রশাসকের কাছে সশরীরে গিয়ে লিখিত জবাব দেন পৌর মেয়র।
মঙ্গলবার বিকেলে তিনি তিনশত টাকার নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে একটি হলফনামা জমা দিয়েছেন। হলফনামায় তিনি এ ধরনের ভুল আর হবে না বলে অঙ্গীকার করেন এবং শেষবারের মতো ক্ষমা প্রার্থনা করেন। ভুল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করায় তাকে শেষবারের মতো একবার সুযোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্যঃ গত ১০ জানুয়ারি রাতে ভাতিজির বিয়ের অনুষ্ঠানে শর্টগানের গুলি ছুড়ে উল্লাস করেন ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র শামীমুল ইসলাম ছানা। তিনি সেখানে পিস্তল ও প্রদর্শন করেন। এমন দৃশ্য ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category