,

পরকীয়া খতিয়ে দেখতে অনুরোধ মিতুর বাবার

চট্টগ্রাম ব্যুরোসাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে পরকীয়ার কোনো ঘটনা থাকলে তা খতিয়ে দেখার আহবান জানিয়েছেন মিতুর বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কার্যালয়ে তদন্ত কর্মকর্তার জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে সমাজে খুন-খারাবিসহ নানা অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে পরকীয়ার কারণে। তাই এ হত্যাকাণ্ডের পেছনে বাবুল ও মিতুর দু’জনেরই কোনো পরকীয়ার ঘটনা ছিল কিনা তা যাচাই করা হোক। আর খুনি যেই হোক না কেন, বাবুল হোক, তার পরিবারের কোনো সদস্য, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধুবান্ধব হোক, যেই হোক না কেন তা বের করুক।

এর আগে সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত টানা চার ঘণ্টা মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন ও মা শাহেদা মোশাররফকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (উত্তর) মো. কামরুজ্জামান।

উল্লেখ্য: গত ২২ ডিসেম্বর সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের শ্বশুর মোশাররফ হোসেনকে মিতু হত্যা মামলার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর বাবুল আক্তারও সিএমপিতে এসে তদন্তকারী কর্মকর্তার সঙ্গে দেখা করেন। স্ত্রী খুনের মামলার বাদী হিসেবে ওইদিন বাবুল আক্তার সিএমপিতে তদন্তকারী কর্মকর্তা কামরুজ্জামানের কার্যালয়ে হাজির হয়ে তার সঙ্গে কথা বলেন।

একই বছরের ৫ জুন সকালে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় নগরীর ওআর নিজাম রোডে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাত ও গুলিতে নিহত হন তৎকালের পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। এ ঘটনায় বাবুল আক্তার নিজে বাদী হয়ে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় একটি মামলা করেন।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category