,

ময়মনসিংহের স্কুল সিলগালা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমতি না থাকা, ইতিহাস বিকৃত করাসহ নানা অভিযোগে ময়মনসিংহ শহরের অন্বেষা ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

রবিবার বেলা দেড়টার ১টার দিকে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি এবং সার্বিক) মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ বন্ধের নোটিশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়ে আসেন।

ইতিহাস বিকৃত করার অভিযোগ উঠেছে অন্বেষা ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিরুদ্ধে। কিছুদিন আগে স্বাধীনতাবিরোধী মোনায়েম খানকে ‘শহীদ’ আখ্যায়িত করে বিদ্যালয়ের লিফলেট নিয়ে ময়মনসিংহে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছিল।

এছাড়া প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে পাকিস্তানি আদর্শ লালন, একাত্তরে মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে নিহত স্বাধীনতাবিরোধী মোনেম খানের নামে প্রতিষ্ঠানটি উৎসর্গ করা ও তার নামের আগে ‘শহীদ’ শব্দটি লেখা, প্রতিষ্ঠানের মনোগ্রামে চাঁদ-তারা খচিত এবং রাষ্ট্রীয় কোনো বিধিবিধান অনুসরণ না করার অভিযোগ রয়েছে। পাশাপাশি স্কুল পরিচালনার অনুমতি না থাকায় তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। পরে নির্দেশনার একটি কপি প্রতিষ্ঠানের গেটে টাঙানো হয় এবং স্কুলটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব চৌধুরী মুফাদ আহমদ জানিয়েছেন, সম্প্রতি শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের কাছে আসা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসন তদন্ত কমিটি গঠন করে। তিন সদস্যের ওই কমিটি গত সপ্তাহে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন দাখিল করে। তাতে ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে উত্থাপিত বিভিন্ন অভিযোগ প্রমাণিত হয়। ফলে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রণালয়। প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনার ক্ষেত্রে সরকারের কোনো সংস্থা থেকে অনুমোদন নেয়া হয়নি। এটি অবৈধভাবে চলছিল।

ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মো. খলিলুর রহমান বলেন, প্রতিষ্ঠানটি বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার চিঠি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পেয়েছি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ মোতাবেক এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

অন্বেষার প্রতিষ্ঠাতা বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিরোধিতাকারী তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর আব্দুল মোনায়েম খানের মেয়ে নাসরিন মোনায়েম খান। নাসরিন এই স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রিন্সিপাল।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category