,

সুস্থ মুরগির ডিম চিনবেন যেভাবে

হাবিবুর রহমানঃ আমরা সবাই জানি যে, ডিম খাওয়া যে স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। আর তাই প্রতি দিন ডিম খেয়ে থাকেন অনেকেই। কিন্তু জানেন কি ডিম খাওয়ার সময়ও বেছে নিতে হয় কোনটা ভাল মানের আর কোনটা নয়? মানে যে ডিমটা আপনি খাচ্ছেন, সেটা সুস্থ মুরগীর ডিম কি না! সুস্থ মুরগীর ডিম হলে তবেই তো আপনি ভালো উপকার পাবেন। তাই আজ জেনে নিন কী ভাবে বুঝবেন কোন ডিম স্বাস্থ্যের জন্য বেশি পুষ্টিকর। এ গবেষকরা একটি পরীক্ষা চালান। আর পরীক্ষার জন্য তিন কার্টন ডিম কেনেন। প্রথম কার্টন কেনা হয় মুরগি খামারের মালিকের কাছ থেকে, দ্বিতীয় কার্টন কেনা হয় দোকান থেকে। দানাশস্য খাওয়া চিকেনের ডিম ছিল এগুলো। তৃতীয় কার্টন কেনা হয় বড় সুপারমার্কেট থেকে।

তিনটি কার্টন থেকে একটা করে ডিম নিয়ে ফ্রাইং প্যানে ফাটানো হয়। আর তখনই চোখে পড়ে পার্থক্যটা। ঠিক যে ভাবে নিউজের সাথের ছবিতে দেখছেন। খামার মালিকের থেকে কেনা কার্টনের ডিমের কুসুমের রং ছিল গাঢ় কমলা। কিন্তু বাকি দুটো ডিমের কুসুমের রং দেখা যায় হাল্কা হলুদ।

গবেষকরা জানিয়েছেন, কমলা কুসুমের ডিমটিই সুস্থ মুরগীর। আর এটার পুষ্টিগুণ সবচেয়ে বেশি। এতে যেমন ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ও ভিটামিনের পরিমাণ বেশি থাকে, তেমনই কম থাকে কোলেস্টেরলের মাত্রা।

বিশেষজ্ঞদের মতে, মুরগির ডায়েটের উপরই নির্ভর করে ডিমের কুসুমের রং। যেই মুরগিরা বিভিন্ন রকম দানাশস্য, পোকামাকড় খায় তাদের ডিমের রং যেমন গাঢ় হলুদ হয়, তেমনই আঁশটে গন্ধও বেশি হয়। আর মুরগির স্বাস্থ্য যদি ভাল হয় তা হলে ডিমও হবে বেশি পুষ্টিকর। যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্যও বেশি উপকারী।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category