,

মুন্সীগঞ্জে মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় বাড়িতে অগ্নিসংযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার বাঘরা গ্রামে মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা।

এতে ঘরে থাকা ফ্রিজ, টিভি, স্বর্ণালংকার ও মোটরসাইকেলসহ ৫০ লক্ষাধিক টাকার আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

এ ব্যপারে প্রশাসনের ভূমিকা রহস্যজনক বলেও মন্তব্য করেছেন তারা। 

সোমবার গভীররাতে শ্রীনগরের বাঘরা গ্রামে ব্যবসায়ী সাদেক আলমের বাড়িতে এ হামলা চালানো হয়। এর আগে গত বুধবার রাতে একই সন্ত্রাসীরা ব্যবসায়ী সাদেক আলমের ওপর চাপাতী ও রাম দাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে কুপিয়ে গুরুতর যখম করে। এ ঘটনায় শ্রীনগর থানায় পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ব্যপারে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা জানান, শ্রীনগরের বাঘরা গ্রামের ফাইভ মার্ডার কেসের আসামী মান্নান ওরফে মান্নান শাহ হত্যা মামলায় ১৪ বছর জেল খেটে মুক্তি পাওয়ার পর প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এলাকায় মাদক ব্যবসা শুরু করেন। এরপর ব্যবসায়ী সাদেক আলম ও তার পরিবার এ কাজে বাধা দিলে দ্বন্দ্বের শুরু। এরই জেরে গত বুধবার সাদেক আলমসহ তার পরিবারের অন্য সদস্যদের ওপর হামলা চালায় মান্নান গং। এ সময় রাম দায়ের কোপে গুরুতর আহত হন সাদেক আলম। ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত স্থানীয় হাসপাতাল এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সেখান থেকে শমরিতা হাসপাতালেও চিকিৎসা নিয়েছেন তিনি। তার মাথায় ১৭টি সেলাই পড়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‌’মাদক-নারীসহ যতো খারাপ কাজ রয়েছে সবকিছুরই ব্যবসা করে তারা (মান্নান গং)। সম্প্রতি খুনের মামলায় জেল খাটার পর মুক্তি পেয়ে আরো বেপরোয়া হয়ে ওঠে এই মান্নান। তার বাড়িতে ১০/২০ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী সব সময় অবস্থান করে। তাদের ভয়ে গ্রামে কেউ মুখ খুলছে না। এমনকি ঘর-বাড়ি জ্বালিয়ে দেয়ার পরে অনৈতিক সুবিধা দিয়ে প্রশাসনকেও ম্যানেজ করেছে তারা। তাদের ভয়ে গ্রামছাড়া সাদেক আলমের পরিবার।’

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category