,

কাঠ ব্যবসায়ীর গলিত লাশ উদ্ধার,আটক ৩

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার আইলহাস মাঠের ভুট্টাক্ষেত থেকে অপহৃত কাঠ ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম (৬০) এর গলিত লাশ ৬ দিন পর উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুর ১ টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত আমিনুল ইসলাম উপজেলার আইলহাস গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে এবং কাঠ ব্যবসায়ী। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আভা রাণী (৫০), তার ছেলে সঞ্জয় (৩৫) ও সুজন (৩২) কে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত ১৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় কাঠ ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম স্থানীয় খাসকররা বাজার থেকে আলমসাধু (শ্যালো ইঞ্জিন চালিত যানবাহন) যোগে বাড়ি ফেরার পথে আইলহাস ভূমি অফিসের কাছে পৌছায়। এসময় ৩-৪ জন দুর্বৃত্ত তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর সে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। সোমবার সকাল ১০ টার দিকে স্থানীয় জনৈক কৃষক ভুট্টাক্ষেতে ঘাস কাটতে গেলে কুপিয়ে হত্যা করা গলিত লাশ দেখে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদেরকে জানায়। পরে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে দুপুরে চুয়াডাঙ্গার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন ও আলমডাঙ্গা থানার ওসি আকরাম হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়। এসময় ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে একই গ্রামের আভা রাণী, তার ছেলে সঞ্জয় ও সুজন কে আটক করে পুলিশ।
নিহতের ছোট ভাই নুরুল ইসলাম জানান, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আইলহাস ভূমি অফিসের কাছ থেকে তার ভাইকে অপহরণ করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। আজ সকালে খবর পেয়ে তার লাশ সনাক্ত করি।
আলমডাঙ্গা থানার ওসি আকরাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, হত্যাকান্ডের কারণ জানা যায়নি, তবে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ ধরণের ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে একই পরিবারের ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category