,

ইবিতে ছাত্রলীগের সংঘর্ষে আহত-৭

ইবি প্রতিনিধিঃ মহান বিজয় দিবসের খাবার নেওয়াকে কেন্দ্র করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় ৭ কর্মী আহত হয়। এরা হলেন- জসিম (হিসাব বিজ্ঞান বিভাগ), নীল (হিসাব বিজ্ঞান বিভাগ), জাকির, মিজান, আশিক, হৃদয় (পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ), হিমেল। আহতদের মধ্যে জসিম ও মিজানের অবস্থা আশংকাজনক অবস্থায় কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।
আজ শুক্রবার বিকেলে সাদ্দাস হোসেন হলে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মীদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিজয় দিবস উপলক্ষে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল আবাসিক হল শিক্ষার্থীদের জন্য উন্নতমানের খাবারের আয়োজন করে। বেলা দুইটার দিকে সাদ্দাম হোসেন হলের শিক্ষার্থীদের মাঝে খাবার বিতরণ শুরু করে হল প্রশাসন।
এসময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অমিত কুমার দাস গ্রুপের কর্মী ও সাদ্দাম হলের সহ-সভাপতি খন্দকার নওশাদ ২৫-৩০ জন ছাত্রলীগ কর্মী ও বহিরাগদের নিয়ে খাবার নিতে আসে।
পরে আড়াইটার দিকে ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম গ্রুপের নেতা ও সাদ্দাম হলের সভাপতি মেহেদী হাসান নাঈম এবং খাবার বিতরণকারী সেচ্ছাসেবকদের সাথে খাবার নেওয়াকে কেন্দ্র করে সম্পাদক গ্রুপের কর্মীদের সাথে কথা কাটাকাটি হয়।
সাদ্দাম হোসেন হল ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান নাঈম জানান, ‘সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মীরা বহিরাগতদের নিয়ে টোকেন ছাড়াই খাবার নেওয়ার চেষ্টা করছিল। এটা ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী বাধা দিলে সেক্রেটারী গ্রুপ আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।’
সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের খন্দকার নওশাদ কবির জানান, ‘আমরা খাবার নিতে গেলে হল সেক্রেটারি সাগর বহিরাগতদের নিয়ে আমাদের ডাইনিং রুম থেকে বের করে দেয় এবং খারাপ আচরণ করে। আমরা এর প্রতিবাদ করেছি।’
বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম জানান, ‘খাবার নিয়ে কর্মীদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়েছে। ঘটনাটি শুনার সাথে সাথে ঘটনাস্থালে এসে মিমাংসা করেছি।’

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category