,

কুমারখালীতে উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে মৌচাষ

কৃষি প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে কৃষক উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে মৌচাষ বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ মৌচাষ লাভজনক হওয়ায় স্থানীয় কৃষকদের মধ্যে আগ্রহ বেড়েছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে কৃষকদেরকে উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে চাপড়া ইউনিয়নের সাঁওতা ব্লকের সাঁওতা, পাইকপাড়া, কল্যানপুর ও ইছাখালীতে বসত ভিটায় মৌচাষ ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। এ ব্যাপারে সাঁওতা গ্রামের কৃষক নাসির উদ্দিন, আলম হোসেন, পাইকপাড়া গ্রামের তোয়াজ আলী লিয়াকত আলী, আক্তার হোসেন, শফিকুল ইসলাম জানান, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা বকুল হোসেনের অনুপ্রেরণায় মৌচাষ শুরু করি। বসত ভিটার পাশাপাশি সরিষা ক্ষেতের সীমানায় স্বল্প খরচে মৌচাষ করে মাত্র ১ থেকে দেড় মাসে অতিরিক্ত ৫-৭ হাজার টাকা আয় হচ্ছে। ফলে কৃষকরা আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি মধুর চাহিদা পূরনে কাজ করে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে ওই ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা বকুল হোসেন জানান, ডিজিটালাইজড কৃষি প্রযুক্তি কর্মসচী বাস্তবায়নের লক্ষে কৃষক উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে বসতভিটায় মৌচাষ শুরু করা হয়। সরিষা ক্ষেতের পাশ আইল ফসল হিসেবে কৃষকরা প্রতিটি বক্স থেকে ১৫ দিন অন্তর অন্তর ৪ থেকে ৫ কেজি মধু আহরণ করে থাকে। পুষ্টির চাহিদ ও অর্থনৈতিকমুক্ত ছাড়াও নিয়মিত মুধ খেলে সর্দি, কাশি ও হার্টের সমস্যা প্রতিরোধ করা সম্ভব।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category