,

অসহায় প্রতিবন্ধীদের শীত

এস.এম সম্রাট : কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নে রয়েছে একটি সংগঠন “সবার সাথে বলবো প্রতিবন্ধী ফেডারেশন ” যার রেজিস্ট্রেশন নং কুষ্টিয়া ৭৯৩। এই সংগঠনের আওতায় রয়েছে ২৫০ জন অসহায় দুঃস্হ প্রতিবন্ধী। আসন্ন শীতকে সামনে রেখে দুঃচিন্তায় রয়েছে কয়েকশত প্রতিবন্ধী ও তার পরিবার। দিন দিন শীতের প্রকোপ বেড়ে চলেছে! তার সাথে বাড়ছে এই সমস্ত প্রতিবন্ধীদের শীতের কষ্টের তীব্রতা।

একজন মানুষের বেচে থাকার জন্য মৌলিক অধিকার ৫ টি। যেমনঃ খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসা ও শিক্ষা। আর এই মৌলিক অধিকার গুলোর মধ্যে বস্ত্র অন্যতম। যার অভাব শতগুণ বেড়ে যায় শীত বস্ত্রের অভাবে। প্রতিবন্ধীরা আমাদের সমাজের বোঝা নয় বরং তারাও দেশ গড়ার কারিগর শুধু প্রয়োজন একটু খানি সহানুভূতি। এমনিতেই আমাদের সমাজে প্রতিবন্ধীরা অনেকটাই অবহেলিত। তাছাড়াও এই প্রতিবন্ধীদের অধিকাংশ পরিবারই নিম্নবিত্ত যারা বেচে থাকার জন্য দুমুঠো খাবার জোগাতে হিমশিম খায় তাদের পরিবারে প্রতিবন্ধী, এমন পরিস্থিতি তাদেরকে আরো বিপদের সম্মুখীন করে। সামান্য শীতেই কাতর হয়ে পড়েছে এই সমস্ত অসহায় প্রতিবন্ধী। তাছাড়াও শীতের আগমনে শীত বস্ত্রের অভাবে প্রতিনিয়ত বাড়ছে বিভিন্ন রোগ ঠান্ডা, জ্বর, ডায়রিয়া সহ অনেক রোগের উপদ্রব।

কয়েকজন প্রতিবন্ধী কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন সারারাত শীতে ঘুমাতে পারি না। শীত আসলে আমাদের কষ্টের সীমা থাকে না। তাই পরিশেষে আমাদের সমাজে বসবাসকারী ধনী – বিত্তশালী, ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলো।

সংস্থার সভাপতি আব্দুল হালিম জানান, শীত আসলে আমাদের কষ্টের সীমা থাকে না। এই সংগঠনের আওতায়  ২৫০ জন অসহায় দুঃস্হ প্রতিবন্ধী রয়েছে। সমাজের বৃত্তবানদের প্রতি আমার আহবান তারা এইসব প্রতিবন্ধীদের পাশে এসে দাড়ান। আপনাদের একটু সহযোগিতায় হাসি ফুটবে দুঃস্থ অসহায় প্রতিবন্ধীদের মুখে। যোগাযোগ : হাটশ হরিপুর, কুষ্টিয়া ব্যাংক একাউন্ট : 002075665 সোনালী ব্যাংক এন.এস রোড শাখা।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category