,

ভূমিদস্যুদের দখলকৃত স্থাপনা গুড়িয়ে দিলেন স্থানীয়রা

ফেনী প্রতিনিধি : জেলার রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন ২শ শতক জায়গা একটি প্রভাবশালী ভূমিদস্যূ চক্র জবরদখলের অংশ হিসেবে রেলওয়ের পরিত্যক্ত পুকুর ও কবরস্থানে মাটি ভরাট করে চারপাশে ইটের বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ করে গত তিনমাস আগে। ওই জবর দখলকৃত স্থাপনা বুধবার গুড়িয়ে দিলেন এলাকার বিভিন্ন বয়সী শত শত নারী-পুরুষ একত্রিত হয়ে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, রেলওয়ের পরিত্যক্ত প্রায় ২শ শতক জায়গা দীর্ঘদিন যাবত স্থানীয় বাসিন্দারা লিজ নিয়ে ভোগ দখল করে আসছিল। স্থানীয়দের মধ্যে আবদুল আহাদ পাটোয়ারী ১.৫৫ একর ভূমি ইজারা নিয়ে মাছ চাষ করছেন।

এছাড়া নুরুল হক, নুরুল আমিন, আবদুল হক, ফিরোজ মিয়া, নবাব আলী, ওহাব আলী, মানিক গংসহ আরো অনেকে ইজারা নিয়ে ভোগ দখলের মাধ্যমে উপার্জন করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন। কিন্তু মাস তিনেক আগে একটি প্রভাবশালী ভূমিদস্যূ চক্র জবরদখলের অংশ হিসেবে রেলওয়ের পরিত্যক্ত পুকুর ও কবরস্থানে মাটি ভরাট করে চারপাশে ইটের বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ কাজ শুরু করে এসময় এলাকাবাসী বাধা দিলে প্রভাবশালী মহল তাদেরকে মামলা হামলা ও পুলিশ দিয়ে হয়রানি করার ভয় দেখায়। এ নিয়ে এলাকাবাসী ক্ষুদ্ব হয়ে উঠলেও তারা ছিল অসহায়।

অবশেষে  বুধবার সকালে বিভিন্ন বয়সী শত শত নারী-পুরুষ একত্রিত হয়ে ভূমিদস্যূ চক্রের জবরদখলকৃত জায়গায় নির্মাণ করা বাউন্ডারি ওয়াল ভেঙে গুড়িয়ে দিয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয় প্রবীন বাসিন্দা আবদুল হক জানান, রেলওয়ের পরিত্যাক্ত এই জায়গাটি দীর্ঘদিন এলাকাবাসী ভোগ করে আসছিল। মাস কয়েক আগে প্রভাবশালী ভূমিদস্যূ চক্র কয়েক’শ কোটি টাকা মূল্যের এই সম্পত্তিতে কুদৃষ্টি পড়ে। তারা এটি বিভিন্ন ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে জবর দখল করে নেয়। এ বিষয়ে বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার না পাওয়ায় এলাকাবাসী ক্ষুদ্ব হয়ে অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেয়।

ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) শাহিনুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ ফেলে ব্যবস্থা নেব।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category