,

টাকা না পেয়ে ‘অস্ত্র ব্যবসায়ীর’ পায়ে পুলিশের গুলি

যশোর প্রতিনিধিঃ যশোরে চাঁদার টাকা না দেওয়ায় তারিফুল ইসলাম (৩০) নামে এক যুবকের পায়ে গুলির অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপশহরের সাত নম্বর সেক্টরের ১৯ নাম্বার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

তারিফুলের দাবি, দাবিকৃত ১০লাখ টাকা দিতে না পারায় পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে গুলি করেছে। এ সময় তার সহযোগী তিলককে (২৯) আটক করা হয়েছে। গুলিবিদ্ধ তারিফুল বালিয়া ভেকুটিয়া এলাকার আবদুর রশিদের ছেলে। তিলক বালিয়া ভেকুটিয়ায় এলাকার উপশহরের সম সাঈদ খোকনের ছেলে।

গুলিবিদ্ধ তারিফুলকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে পিস্তল গুলি ও ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে পুলিশ।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তারিফুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তাদের দুইজনকে উপশহরের নিউ মার্কেটের গ্রিন লাইন কাউন্টারের পেছন থেকে আটক করে ১০ লাখ টাকা দাবি করে পুলিশ। তারা টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় ধরে নিয়ে গুলি করেছে পুলিশ।

কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইলিয়াস হোসেন বলেন, ‘গুলিবিদ্ধ যুবক অস্ত্র ব্যবসায়ী। অস্ত্রসহ দুইজনকে আটক করা হয়েছে। পুলিশের বিরুদ্ধে টাকা দাবির অভিযোগ সঠিক নয়।’

যশোরের উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আবদুর রহিম জানিয়েছেন, উপশহরের সাত নাম্বার সেক্টরের ১৯ নাম্বার বাড়িতে মাদক বিক্রি হচ্ছে বলে পুলিশ খবর পেয়ে সেখানে অভিযানে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক বিক্রেতারা গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে মাদক বিক্রেতা তারিফুল ইসলামের বাম পায়ে গুলি লাগে।

তাকে আটক করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আটক করা হয় তিলককে। এসআই আবদুর রহিম আরো জানান, মাদক বিক্রেতাদের গুলিতে দুই পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category