,

ছবি তোলার নাম করে শিশু চুরি

যশোর প্রতিনিধি: যশোরে সরকারি সাহায্যের জন্য ছবি তোলার নাম করে আলী নামে নয়দিন বয়সী এক শিশু চুরির ঘটনা ঘটেছে। রবিবার সন্ধ্যায় অভিনব কায়দায় ৯ দিন বয়সী ছেলেশিশু চুরি হয়।

প্রতারণার মাধ্যমে এক মহিলা ওই শিশুটিকে চুরি করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন শিশুটির নানী।

আলী নামে ওই শিশুটি যশোরের কেশবপুর উপজেলার বরণডালি গ্রামের রেজাউল করিমের ছেলে। সন্তান প্রসবের পর শিশুটির মায়ের শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

শিশুটির বাবা রেজাউল করিম  জানান, ‘নয় দিন আগে তার স্ত্রী তহমিনা নিজবাড়িতে একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন। প্রসবের পর তার স্ত্রীর জরায়ুর নাড়িতে সমস্যা দেখা দিলে তাকে কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে কোনও উন্নতি না হওয়ায় ১৯ নভেম্বর সকালে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রবিবার বিকেলে শাশুড়ি ফিরোজা বেগমের কাছ থেকে এক মহিলা প্রতারণার মাধ্যমে শিশুটি চুরি করে নিয়ে যায়।’

শিশুটির নানি ফিরোজা বেগম জানান, ‘রবিবার বিকেলে আমি যশোর জেনারেল হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় গাইনি ওয়ার্ডে নাতিকে নিয়ে বসে ছিলাম। এ সময় অপরিচিত এক মহিলা তাকে বলেন, তোমরা গরিব মানুষ। তোমার নাতি ছেলের ছবি তুলে নিয়ে গেলে সরকার তোমাদের টাকা দেবে। সেই টাকা দিয়ে তোমার মেয়ের চিকিৎসা করাতে পারবে।’

তিনি আরও জানান, ‘তার কথামত শহরের দড়াটানা মোড়ে ছবি তুলতে যায়। ছবি তোলার পর ওই অপরিচিত মহিলার কথামত শিশুটিকে নিয়ে আমি জেল রোডে কুইন্স হাসপাতালের তৃতীয় তলায় টাকা আনতে যায়। তখন ওই প্রতারক মহিলা শিশুটিকে তার কাছে দিয়ে ভেতরে যেতে বলে। আমি শিশুটিকে তার কোলে দিয়ে ভেতরে গিয়ে কিছু না পেয়ে ফিরে দেখি মহিলাটি উধাও।’

এ ব্যাপারে কোতয়ালী কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস হোসেন বলেন, ‘কুইন্স হাসাপাতাল থেকে ৯ দিন বয়সী একটি শিশু চুরি হয়েছে শুনেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।’

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category