,

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-৯

ডেক্স রিপোর্ট: দেশের বিভিন্ন জেলায় পৃথক পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নারী, শিশুসহ প্রাণ হারিয়েছেন ৯ জন। খুলনা-সাতক্ষীরা সড়কের কাঁঠালতলায় ট্রাক-মহেন্দ্র ও ব্যাটারিচালিত ভ্যানের ত্রিমুখী সংঘর্ষে মা ও দুই ছেলেসহ চারজন নিহত এবং ৫ জন আহত হয়েছেন।

ঝালকাঠিতে বাসচাপায় মারা গেছে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলের চালক জনি দাস। নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে বাসচাপায় এক অটোরিকশা চালক ও এক নারী নিহত হয়েছেন। নড়াইলে বাসচাপায় জুলফিকার নামে ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেলের এক চালক নিহত হয়েছেন। চট্টগ্রামের পটিয়ায় বাসচাপায় মো. করিম নামে এক পুলিশ কনস্টেবল নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন মো. রুবেল নামে অপর এক পুলিশ কনস্টেবল।

খুলনা : খুলনা-সাতক্ষীরা সড়কের কাঁঠালতলায় ট্রাক-মহেন্দ্র ও ব্যাটারিচালিত ভ্যানের ত্রিমুখী সংঘর্ষে মা ও দুই ছেলেসহ চারজন নিহত এবং ৫ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে ডুমুরিয়া উপজেলার কাঁঠালতলা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন-মা সাথী বেগম ও তাঁর ২ ছেলে এবং তহুরা বেগম। তাৎক্ষণিকভাবে আহত ৫ জনের পরিচয় জানা যায়নি। তাদের ডুমুরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ডুমুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুভাষ বিশ্বাস জানান, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ঝালকাঠি : ঝালকাঠিতে বাসচাপায় মারা গেছে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলের চালক জনি দাস (৩৫)। এ সময় আহত হয়েছে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে বরিশাল-ঝালকাঠি আঞ্চলিক মহাসড়কের বাদামতলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মোটরসাইকেলের চালক জনি দাস বরিশালের গির্জা মহল্লা এলাকার দুখু দাসের ছেলে। তিনি ঝালকাঠি-বরিশাল রুটে ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালাতেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সকালে রূপাতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে মোটরসাইকেলে দুজন যাত্রী নিয়ে চালক জনি দাস ঝালকাঠি আসছিলেন। বাদামতলী এলাকায় আসলে বরিশালগামী যাত্রীবাহী বাস আজমির পরিবহন তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল চালক জনি দাস মারা যান। আহত হয় কবির হোসেন ও খলিলুর রহমান নামে দুজন যাত্রী। তাদের ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখান থেকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঝালকাঠি থানার ওসি মো. মাহে আলম বলেন, মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় বরিশাল রূপাতলী এলাকা থেকে ঘাতক বাস ও চালককে আটক করা হয়েছে।

রূপগঞ্জে : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে বাসচাপায় এক অটোরিকশা চালক ও এক নারী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার কর্ণগোপ এলাকার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতদের মধ্যে লিটন মিয়া নামে রিকশাচালকের নাম জানা গেছে।

রূপগঞ্জ থানার ওসি ইসমাইল হোসেন জানান, বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে সিলেটগামী একটি দ্রুতগামী বাস অপরদিক থেকে আসা একটি অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই অটোরিকশা চালক লিটন মিয়া ও এক নারী যাত্রী নিহত হন। নড়াইলে বাসচাপায় মোটরসাইকেল চালক নিহত

নড়াইল : নড়াইলে বাসচাপায় জুলফিকার (৫০) নামে ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেলের এক চালক নিহত হয়েছেন। এ সময় সড়কের পাশে থাকা যাত্রী ও পথচারীসহ চারজন গুরুতর আহত হয়েছেন। উত্তেজিত জনতা ঘাতক বাস ও চালককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। শুক্রবার দুপুরে নড়াইল-মাগুরা সড়কে নড়াইলের ধোন্দা মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, হবখালী ইউনিয়নের সুবুদ্ধিডাঙ্গা এলাকায় রাস্তার পাশের গাছ কাটার ফলে চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়ায় সেখানে একটি যাত্রীবাহী ইজিবাইক ও মোটরসাইকেল দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় মাগুরা থেকে নড়াইলগামী একটি বাস তাদের ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেলের চালক জুলফিকার ও ইজিবাইকের চার যাত্রী হাফেজ (৭০), নবজেল (২০), মাসুম (২৫) এবং আমিন শেখ গুরুতর আহত হন।

আহতদের উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোটরসাইকেলের চালক জুলফিকার মারা যান। আহত ইজিবাইকের আরোহী সদরের রতডাঙ্গা গ্রামের হাফেজকে (৭০) মুমূর্ষু অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনার পর বাসটি নিয়ে চালক পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয় জনতা ধাওয়া করে বাসসহ তাকে আটক করে। নড়াইল সদর থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের পটিয়ায় বাসচাপায় মো. করিম (৩০) নামে এক পুলিশ কনস্টেবল নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন মো. রুবেল নামে অপর এক পুলিশ কনস্টেবল। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পটিয়া-আনোয়ারা-বাঁশখালী পিএবি সড়কের দৌলতপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত করিম রাঙামাটি সদর থানায় কর্মরত ছিলেন। একই থানায় কর্মরত আহত রুবেল দাশকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পটিয়া থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) রেজাউল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, করিম ও রুবেল মোটরসাইকেলে বাঁশখালী যাচ্ছিলেন। দৌলতপুর এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল চালক করিম মারা যান।

[metaslider id=289]

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category