,

সোহরাওয়ার্দীর পরিবর্তে নয়াপল্টনে বিএনপি

ডেক্স নিউজ: সমাবেশের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ব্যবহারের অনুমতি না পেয়ে এবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের রাস্তা চেয়েছে বিএনপি।

নিরাপত্তার কথা চিন্তা করলে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চেয়ে নয়াপল্টনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির কোনো অবনতি হবে না বলেও বলছেন দলটির নেতারা।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ-আইইবিতে মহিলা দলের জেলা প্রতিনিধি সম্মেলনে অংশ নিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব বলেন, ‘নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অনুমতি চাওয়া হয়েছে। আশা করছি, ৭ অথবা ৮ তারিখে অনুমতি দেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘সেখানে (নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে) এর আগেও আমরা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করেছি। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশ করতে দেবেন না, তাহলে পার্টি অফিসের সামনে দিন।’

৭ নভেম্বর ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে পরদিন ৮ নভেম্বর সমাবেশ আয়োজনের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ব্যবহারের অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছিল বিএনপি। আর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ৭ নভেম্বর উপলক্ষে যে কোনো কর্মসূচি প্রতিহত করার ঘোষণা দেয়।

এই পরিস্থিতিতে ঢাকা মেট্রেপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সমাবেশের জন্য কোনো রাজনৈতিক দলকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানকে ব্যহারের অনুমতি দেওয়া হবে না।

ডিএমপির কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ‘একাধিক রাজনৈতিক দল ৭, ৮ ও ৯ নভেম্বর তারিখে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার জন্য অনুমতি চেয়েছে। জননিরাপত্তার স্বার্থে তাই কোনো রাজনৈতিক দলকেই ওই তারিখগুলোতে সেখানে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না।’

এর পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার দুপুরে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছিলেন ‘এই সরকার সব সময়ই একটা অজুহাত খোঁজে। তাই আমরা জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বিকল্প স্থানে সমাবেশের অনুমতি চাইবো। আশা করি, সেখানে সমাবেশ করার অনুমতি পাবো।’

[metaslider id=289]

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category