,

আমলায় এক হাজার পরিবারের মাঝে খাবার পৌঁছে দিলো ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং


জাহিদ হাসান ॥
করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের শীর্ষ স্থানীয় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেডের পক্ষ থেকে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলা ইউনিয়নের এক হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব বশির আহম্মেদ এর অর্থায়নে বুধবার দিনব্যাপি আমলা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে খেটে খাওয়া শ্রমজীবি, চায়ের দোকানদার, রিক্সা চালক, ভ্যান চালকসহ অসহায় ও দুস্থ্যদের দোড় দোড়ায় এ খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা।

হ্যান্ডস্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবানুমুক্ত করাচ্ছেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের সাবেক যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, মিরপুর প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কাঞ্চন কুমার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক হাজ্বী আসাদুল হক মিল্টন, সাংবাদিক জাহিদ হাসান প্রমুখ।

দিনব্যাপি এসময় বিতরণকালে সার্বক্ষনিক সহায়তা করেন আমলা ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে জনপ্রতিনিধিগণ, জামিরুল ইসলাম, নাসিম রেজা, আরিফ আহম্মেদ।

বুধবার আমলা ইউনিয়নের আমলা, শাহাপুর, বুরাপাড়া, মিটন ও কুশাবাড়ীয়া এলাকার শ্রমজীবি, চায়ের দোকানদার, রিক্সা চালক, ভ্যান চালকসহ অসহায় ও দুস্থ্যদের দোড় দোড়ায় ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেডের পক্ষে এসব খাদ্যদ্রব্য তুলে দেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা।

ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং এর পক্ষে শাহাপুর এলাকায় খাদ্য সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা।

খাদ্যদ্রব্য বিতরণের পূর্বে প্রতিটি এলাকার মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে হ্যান্ডস্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবানুমুক্ত করা শেখান। সেই সাথে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া এবং নিরাপদ দুরত্ব সর্ম্পকে গুরুত্বপূর্ন কথা বলেন।

সকালে শাহাপুর এলাকায় এ খাদ্যদ্রব্য বিতরণের সময় অসহায় এসব মানুষের সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মতবিনিময় করেন ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব বশির আহম্মেদ।
এসময় তিনি বলেন, আপনারা আমার এলাকার মানুষ। দেশে এখন করোনা ভাইরাসের কঠিন সময় চলছে। এর মধ্যে আপনারা খেটে খাওয়া মানুষেরা বাইরে বের হতে পারছেন না। আপনারা যাতে নিরাপদে বাড়ীতে থাকতে পারেন। এজন্য আমার পক্ষ থেকে আপনাদের জন্য আমার এই সহযোগিতা। আপনারা সুস্থ্য থাকুন, ভালো থাকুন এই কামনা করি।

ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং এর পক্ষে বুরাপাড়া এলাকায় খাদ্য সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা।

অসহায় এসময় খেটে খাওয়া মানুষ এসব খাদ্যদ্রব্য পেয়ে খুশি হয়ে ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব বশির আহম্মেদকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এ খাদ্যদ্রব্য বিতরণকালে আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা বলেন, এই করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মজীবি নি¤œ আয়ের মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। খেটে খাওয়া মানুষেরা ঘরে বসে থাকছেন। মানুষের এ দুঃসময়ে তাদের পাশে থাকা আমাদের কর্তব্য। আমলা ইউনিয়নের কোন মানুষ যাতে না খেয়ে না থাকে এজন্য আমি কাজ করে যাচ্ছি।

ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং এর পক্ষে মিটন এলাকায় খাদ্য সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা।

ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব বশির আহম্মেদ একজন দানশীল ব্যক্তি। তিনি গরীব ও অসহায় মানুষের পাশে সব সময় থাকেন। এই করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন মানুষের পাশে এসে তিনি দাড়িয়েছেন। এই আমলা ইউনিয়নের মানুষ যাতে কর্মের অভাবে না খেয়ে না থাকে এজন্য তিনি প্রথমেই এক হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। প্রয়োজনে আগামীতে আবারো দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। আপনারা শুধু আলহাজ্ব বশির আহম্মেদ এর জন্য প্রাণ ভরে দোয়া ও আর্শিবাদ করবেন।

শুধু আমলায় নয় কুষ্টিয়ার জেলার দৌলতপুর উপজেলায়ও প্রায় এক হাজার গরীব ও অসহায় খেটে খাওয়া মানুষের কাছে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব বশির আহম্মেদ।

ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং এর পক্ষে আমলা এলাকায় অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা।

উল্লেখ্য, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব বশির আহম্মেদ দীর্ঘদিন ধরেই এই অঞ্চলে শিক্ষা বিস্তারের জন্য গুরুত্বপূর্ন অবদান রাখছেন। তিনি নিয়মিত বিভিন্ন বিদ্যালয়ে ভবন, অডিটোরিয়াম, বিদ্যালয়ের ফটক, কম্পিউটার ল্যাব, আইসিটি ল্যাব, প্রশাসনিক ভবন, শিক্ষার্থীদের খেলাধুলার বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ করে আসছেন। সেই সাথে আলহাজ্ব বশির আহম্মেদ তার প্রতিষ্ঠানে জেলার হাজারো বেকার যুবকদের চাকুরীর সুযোগ দিয়ে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করছেন। এবং বিভিন্ন সামাজিক ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত আর্থিক সহায়তা করে আসছেন। এছাড়া তিনি একজন মিডিয়া বান্ধব ব্যাক্তিত্ব হিসাবে পরিচিত। বিভিন্ন প্রেসক্লাবে তিনি এসি, কম্পিউটারসহ বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ করে আসছেন। দেশের মানুষের দুঃসময়ে তিনি সব সময় এগিয়ে এসেছেন। গরীব ও অসহায় মানুষের পাশে এসে দাড়িয়েছেন।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category