,

মুলতানি মাটির যত উপকারিতা

লাইফস্টাইল ডেস্ক: নারীদের সৌন্দর্য চর্চায় যুগে যুগে ব্যবহৃত হয়ে আসছে মুলতানি মাটি। তাই রূপচর্চায় মুলতানি মাটির ব্যবহার সম্পর্কে আমরা কম-বেশি অনেকেই জানি। কিন্তু রূপ চর্চার হাজারো প্রোডাক্টের মতো অধিকাংশ মানুষই এই জিনিসটি ব্যবহার করে থাকেন। অন্য দিকে, অনেকেই মাটি বলে একে দূরে রাখেন। কিন্তু রূপচর্চায় সব সময়ই প্রাকৃতিক জিনিস ব্যবহার করা ভালো। তাই আজ আবার নতুন করে জেনে নেয়া যাক সৌন্দর্যচর্চায় মুলতানি মাটির কিছু ব্যবহার।
> মুলতানি মাটি ত্বকের মৃতকোষ পরিষ্কার করে শ্বাস নিতে সাহায্য করে। সেইসাথে মুলতানি মাটি ত্বকের রক্তপ্রবাহ বৃদ্ধি করে।
> তৈলাক্ত ত্বকের জন্য মুলতানি মাটি খুব উপকারী। মুলতানি মাটির সাথে শুধু গোলাপ জল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। ত্বকে লাগিয়ে অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।
> ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে এবং ত্বককে টান টান রাখতে মুলতানি মাটি বেশ উপকারী। এর ব্যবহারে ত্বকে ব্রন ও বলিরেখা দূর হয় এবং ত্বক দেখায় উজ্জ্বল।
> অ্যান্টিসেপটিক হিসেবেও কাজ করে মুলতানি মাটি। আপানার মুখে যদি ব্রনের দাগ থেকে যায়, তা হলে চিন্তার কোনো কারণ নেই। নিম পেস্ট এর সাথে লবঙ্গ গুঁড়ো, কর্পূর, মুলতানি মাটি ও গোলাপ জল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। সপ্তাহে ৪ দিন বা চাইলে প্রতি দিন এই পেস্টটি ব্যবহার করুন ত্বকে ব্রনর কালো দাগ দূর করার জন্য।
> রোদে পোড়া ত্বক সারিয়ে তুলতেও মুলতানি মাটি ম্যাজিকের মতো কাজ করে।
> স্ক্রাবার হিসেবেও মুলতানি মাটি খুব কার্যকরী। ব্ল্যাক হেডস ও হোয়াইট হেডস দূর করতে মুলতানি মাটি দারুণ কাজ দেয়। মুলতানি মাটির সাথে কাজুবাদাম বাটা ও গ্লিসারিন মিশিয়ে স্ক্রাবার বানিয়ে মুখের ত্বক স্ক্রাব করতে পারেন।
> ব্রন হওয়ার পর ত্বকে ছোট ছোট গর্ত দেখা দেয়। তাও আপনি দূর করতে পারেন মুলতানি মাটি দিয়ে। গাজর বাটা, মুলতানি মাটি ও সামান্য অলিভ অয়েল মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে ত্বকে লাগান। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।

Facebooktwitterlinkedinyoutube
Facebooktwitterredditpinterestlinkedin


     More News Of This Category